1. admin@purbobangla.net : purbobangla :
বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ০৫:০০ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
সীতাকুণ্ডে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটর সাইকেল আরোহী ও মহিলাসহ নিহত ২ জন স্মার্ট ও সুখী সমৃদ্ধ উন্নত বাংলাদেশ গড়তে যুবলীগ নিরলস কাজ করছে-হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর সীতাকুণ্ডে জামাতে নামাজ পড়ে সাইকেলসহ বিভিন্ন উপহার পেলেন শতাধিক কিশোর সিইবিসি দুই পেরিয়ে ৩য় বর্ষে পদার্পণ বাজেটকে স্বাগত জানিয়ে আনন্দ মিছিল করেছে আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সরকারি হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজ ২০২৪-২৫ অর্থবছরে দেশের উন্নয়ন ও গণমুখী বাজেটকে স্বাগত জানিয়ে চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল ফৌজদারহাট বিট কাম চেক স্টেশন কর্তৃপক্ষ সেগুন কাঠ বোঝাই কাভার্ডভ্যান আটক আনোয়ারায় ওয়াসিকা ও জাবেদ গ্রুপের সংঘর্ষ চট্টগ্রাম জুড়ে একাধিক প্রশ্ন সীতাকুণ্ড নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সাথে মিনি বাসের ধাক্কা আহত ৯ সীতাকুণ্ডে ডিসি পার্কে জন প্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবের চলান পরিদর্শন

বিয়ের আসরে প্রেমিক হাজির, খালি হাতে ফিরলেন বর

পূর্ব বাংলা ডেস্ক
  • প্রকাশিত সময়ঃ বুধবার, ৩০ আগস্ট, ২০২৩
  • ২১৮ বার পড়া হয়েছে

বরযাত্রীতে নিয়ে হাজির পাত্র। সেজেগুজে প্রস্তুত কনেও। এর মধ্যেই বিয়ের আসরে হঠাৎ দেখা প্রেমিকের সঙ্গে। ব্যাস, ওমনি মতবদল করে ফেললেন কনে। মনের মানুষকে ছাড়া আর কারও গলায় মালা দেবেন না বলে জানিয়ে দেন তিনি। তাতেই ভেস্তে যায় পুরো আয়োজন। খালি হাতে ফিরে যেতে হয় পাত্রপক্ষকে। সিনেমায় নয়। বাস্তবেই ঘটেছে এমন ঘটনা।

জানা যায়, ঘটনাটি ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের কোলালা শহরের। সেখানে কয়েকদিন আগে বিয়েবাড়িতে হঠাৎ মতবদল হয় এক কনের। বিয়ের রীতি রেওয়াজ শুরু হতেই আচমকা গাঁটছড়া বাধঁবেন না বলে জানিয়ে দেন তিনি।কিন্তু দুই বাড়িতে রীতিমতো কথাবার্তা বলেই ঠিক হয়েছিল বিয়ে। পাত্র-পাত্রী দুজনেই একে অপরকে পছন্দ করে রাজি হয়েছিলেন। তাহলে শেষ মুহূর্তে কেনই বা বিয়েতে নারাজ হলেন কনে? হকচকিত হয়ে যান বিয়েবাড়িতে উপস্থিত সবাই। তবে আসল কারণ ফাঁস হতে সময় লাগেনি।

কিছুক্ষণের মধ্যে সবাই জানতে পারেন, ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কনের প্রেমিক। শুভদৃষ্টির আগে তাকে দেখতে পান কনে। আর তাই ভালোবাসার মানুষকে ছেড়ে অন্য় কোনো পুরুষের গলায় মালা পরাবেন না বলে ঘোষণা দেন তিনি।

মূলত দীর্ঘদিন ধরে ওই যুবকের সঙ্গে প্রেম ছিল কনের। কিন্তু সেই সম্পর্কে মত ছিল না তার পরিবারের। এরই মধ্যে বাড়ি থেকে বিয়ে ঠিক করায় মনের দুঃখ চেপে রাজি হয়েছিলেন তরুণী। কিন্তু বিয়ের আসরে প্রেমিককে দেখে আর নিজেকে সামলাতে পারেননি। জানিয়ে দেন, প্রেমিককে ছাড়া আর কাউকে জীবনসঙ্গী করতে পারবেন না তিনি।

এর ফলে হইচই পড়ে যায় বিয়েবাড়িতে। গোলমালের একপর্যায়ে ডাকা হয় পুলিশ। তবে পুলিশও কনের পক্ষই নিয়েছিল। মেয়েটির অমতে বিয়েতে জোর না দিতে পাত্রপক্ষকে রাজি করান তারা।

এই বিয়ের জন্য উভয় পরিবারই বিপুল টাকাপয়সা খরচ করেছিল। কিন্তু কনের আপত্তিতে ভেস্তে যায় সব।জানা গেছে, দুই পরিবার এখন বিয়ের জন্য আরেকটি দিন নির্ধারণে রাজি হয়েছে।সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, এই সময় ও জনকন্ঠ

 

শেয়ার করুন-

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 purbobangla