1. admin@purbobangla.net : purbobangla :
শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১০:২২ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
সিএমপি’র নতুন কমিশনার কৃষ্ণপদ রায় নলছিটিতে প্রাইভেটকারে ইয়াবা ও গাঁজাসহ আটক-২ বীণারানী দে’র শোক সভায় বক্তারা মানুষের কল্যাণ সাধনের মাঝে জীবনের মহত্ব চট্টগ্রাম বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম ব্যবসায়ী গ্রুপের নির্বাচনের প্রার্থী পরিচিতি অনুষ্ঠান বাংলাদেশ ওয়েলফেয়ার সোসাইটির উদ্যোগে সিলেটের বন্যা দুর্গত ৭ শতাধিক পরিবারে ত্রাণ বিতরণ দুর্নীতিঃ চাকরি গেলো ডিএসসিসির কর কর্মকর্তাসহ ৩৪ জনের ‘লিগ্যাল এইড দরিদ্র বিচার প্রার্থীর শেষ আশ্রয়স্থল’ বাংলাদেশ ফাইন্যান্সের অগ্নি নির্বাপণ জরুরী উদ্ধার ও বহির্গমন বিষয়ক প্রশিক্ষণ ও মহড়া অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে ৬৮০পিচ ইয়াবাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নবাবগঞ্জে আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের উপজেলা টাস্কফোর্স কমিটির সভা

নাম গ্রীন ফুড রেষ্টুরেন্টঃ আদতে মাদক বিক্রি ও অসামাজিক কর্মকান্ডের আখড়া এটি

পূর্ব বাংলা ডেস্ক
  • প্রকাশিত সময়ঃ বুধবার, ৮ জুন, ২০২২
  • ৭০ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিনিধি

গ্রীন ফুড রেষ্টুরেন্টের নাম দিয়ে অসামাজিক কর্মকাণ্ডের আখড়া বানিয়ে পরিবেশ বিষিয়ে তুলছে ইপিজেড অঞ্চলে । ইপিজেড থানার অদুরে মেইন রাস্তার পূর্বে বিশাল সাইনবোর্ড দিয়ে সোহাগ ও রাজিব ২ ইয়াবা পাচারকারী এ অপকর্ম চালাচ্ছে নির্বিঘ্নে । কতিপয় দূনীতিবাজ  ব্যাক্তি তাদের আশ্রয়ওও দিচ্ছে । ইপিজেড থানারওসি সাহেবের কাছে এসব বিষয় গোপন রেখে অসামাজিক কর্মকাণ্ড ও সাথে এখানে ইয়াবাও বিক্রি হচ্ছে। রেষ্টুরেন্টের পরিচালক মাসুদ ইতিপূর্বে ইয়াবাসহ ধরা পড়ে হাজতবাসও করেছিল।সে নিজে কখনো সাংবাদিক কখনো সিআইডি  কিংবা ডিবি পুলিশও পরিচয় দেয়।

স্হানীয় লোকেরা বলছে,  গ্রীন ফুড রেষ্টুরেন্ট নামে হলেও আসলে এইটি একটি মিনি পতিতালয়।পতিতারা এটি অসামাজিক কাজের নিরাপদ ঠিকানা হিসেবে ব্যবহার করে থাকে ।এই বিষয়ে রেস্টুরেন্টের পরিচালক দাবীদার জনৈক মাসুদ বলেন, এইটি আমরা চালালেও সব আয়ের টাকা পুলিশের ক্যাশিয়ার, ওসি ও বন্দরের ডিসিকে দিতে হয়  । ক্যাশিয়ার ইপিজেড থানার ওসিসহ সবাইকে এই টাকা দিয়ে ম্যানেজ করে থাকে বলে ওই হোটেল পরিচালক দাবী করে।।

এই এলাকায় অবস্থিত ব্যারিষ্টার আহমেদ সুলতান চৌধুরী কলেজের প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এস, এম, আনচার উল্লাহ বলেন, সংবাদ প্রকাশের পর এটি বন্ধ না হলে আমরা ইপিজেড থানা ঘেড়াও করব প্রয়োজনে সাংবাদিক  সম্মেলন করে প্রশাসন। পরিবেশ রক্ষার্থে প্রয়োজনে ছাত্র-ছাত্রীদের এই বিষয়ে মাঠে নামাতে হবে।  এই সব বিষয়ে এসএনটিভিতে ইতিপূর্বে সংবাদওও প্রকাশিত হয়। লিংকটি ক্লীক করলে বিস্তারিত জানা যাবে।  https://www.facebook.com/watch/?v=241974013796904

  খাওয়াদাওয়া নয়অবৈধ মেলামেশাই যেন এখানে মূখ্য। আলো নয়, অন্ধকারই এখানখার বাস্তবতা। যেখানে তরুণ তরুণী থেকে শুরু করে অপ্রাপ্ত বয়স্ক কিশোর কিশোরীরা জোড়া জোড়া প্রবেশ করে। আর ঘণ্টার পর ঘণ্টা সময় ব্যয় করে থাকেন এখানে । এখন দিন রাত  শুরু হয়েছে এই আলো আঁধারি রেস্টুরেন্টের রমরমা ব্যবসা। 

গ্রীন ফুড রেষ্টুরেন্টের দরজা ঠেলে প্রবেশ করতেই ঘুট ঘুটে অন্ধকার। চোখে অনেকটা ঘোর লেগে যায়। কয়েক মুহূর্তের মধ্যে চোখের ঘোর কাটিয়ে ম্যানেজারের ঝাপসা চেহারা দেখা গেলেও ভিতরের কি চলছে তা বুঝা যাচ্ছিল না। কিন্তু পাশ থেকে কয়েকজন ছেলে-মেয়ের শব্দ কানে আসছে। কয়েক পা এগোতেই দেখা গেল বেড়া দেয়ার মত অনেকটা চেয়ার।

আঁটোসাঁটো চেয়ারের সামনে ছোট একটি টেবিল। টেবিলের এক পাশে বসানো চেয়ারের লম্বাটে সিটে অনেকটা ঠাসাঠাসি করে দু’ জনকে বসতে হয়। কিন্তু তাদের চেহারা ভালভাবে দেখা যাচ্ছে না। কিন্তু বুঝা যাচ্ছে এরা স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয় রাজনৈতিক নেতাদের আশ্রয়ে রেস্টুরেন্ট মালিকরা এ অনৈতিক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে। এলাকাবাসী এই অসামাজিক কর্মকাণ্ডের আখড়া গ্রীণ ফুড রেস্টুরেণ্টটি যেন সিল গালা করে দেয়া হয় সেই প্রত্যাশা করছে।

এ  বিষয়ে স্হানীয় কমিশনার জিয়াউল হক সুমন এই প্রতিনিধি বলেন আমি এইটি চিনছি না। খবর নিচ্ছি, দ্রুত ব্যবস্হা নেবো।

 

শেয়ার করুন-

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 purbobangla